কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ (১৫টি পদ)

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার বল্যাণ মন্ত্রণালয় স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যা বিভাগ, পারসোনেল-১ অধিশাখা, বাংলাদেশ সচিবালয় এর স্মারক নং-৫৯.০০.০০০০.১০৯.১১.০১৯..২১-১৮৩ ও তারিখ মোতাবেক ছাড়পত্র পাওয়ায় কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ কুষ্টিয়ার ২য় ও ৩য় শ্রেণীর রাজস্বখাতভুক নিম্নোক্ত সৃজনকৃত শুন্য পদ সমূহে অস্থায়ী ভিত্তিতে সরাসরি নিয়োগের মাধ্যমে পূরণের জন্য পদের পাশে বর্ণিত শর্তে প্রকৃত বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিকদের নিকট হতে ওয়েবসাইটে দরখাস্ত আহ্বান করা যাইতেছে।

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ এ চাকরির সকল তথ্য সংক্ষেপে দেখুন-

  • চাকরির ধরনঃ সরকারি
  • আবেদনযোগ্য জেলাঃ সকল জেলা
  • চাকরি দাতা প্রতিষ্ঠানঃ কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ
  • খালিপদঃ ০৭টি
  • পদের সংখ্যাঃ ১৫ জন
  • বয়সসীমাঃ ১৮-৩০ বছর
  • আবশ্যিক শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ এসএসসি/উচ্চ মাধ্যমিক/স্নাতক
  • আবেদন কার্যক্রম শুরুঃ ০১/০৯/২০২১
  • আবেদনের শেষ সময়ঃ ২২/০৯/২০২১
  • আবেদনের করা যাবেঃ টেলিটকের মাধ্যমে

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ নিয়োগ ২০২২

পদের নামঃ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট
শূন্যপদের সংখ্যাঃ ০৫ জন
বেতন স্কেলঃ১২৫০০-৩০২৩০ টাকা
গ্রেডঃ ১১

পদের নামঃ স্টেনোগ্রাফার কাম কম্পিউটার অপারেটর
শূন্যপদের সংখ্যাঃ ০১ জন
বেতন স্কেলঃ ১১০০০-২৬৫৯০ টাকা
গ্রেডঃ১৩

পদের নামঃ একাউনটেন্ট
শূন্যপদের সংখ্যাঃ ০২ জন
বেতন স্কেলঃ ১০২০০-২৪৬৮০ টাকা
গ্রেডঃ১৪

পদের নামঃ সহকারি লাইব্রেরীয়ান
শূন্যপদের সংখ্যাঃ ০১ জন
বেতন স্কেলঃ ১০২০০-২৪৬৮০ টাকা
গ্রেডঃ ১৪

পদের নামঃ অফিস সহকারি কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
শূন্যপদের সংখ্যাঃ ০৪ জন
বেতন স্কেলঃ ৯৩০০-২২৪৯০ টাকা
গ্রেডঃ ১৬

পদের নামঃ ড্রাইভার
শূন্যপদের সংখ্যাঃ ০২ জন
স্কেলঃ ৯৩০০-২২৪৯০ টাকা
গ্রেডঃ ১৬

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

আরো পড়ুন-

KUSTHIA Medical College Job Circular 2022

আবেদন কারীর বয়স ২৫/০৩/২০২০ তারিখে ৩০ বছরের মধ্যে থাকতে হবে। শুধু মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুরর-কন্যা এবং শারীরিক প্রতিবৰী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা ৩২ বছর, তবে মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুর-কন্যা এর পুরর-কন্যাদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা ৩০ বছর শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ এবং জাতীয় পরিচয়পত্র, অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ এর বয়স নির্ধারণ করা হবে। বয়সের ক্ষেত্রে সরকারী বিধি বিধান অনুসরন করা হবে। বয়স প্রমাণের ক্ষেত্রে কোন এফিডেভিট গ্রহণযোগ্য নয়।

সকল পদের জন্য কেবল উপযুক্ত আবেদনকারীদেরকে লিখিত পরীক্ষার ডাকা হবে। পরবর্তীতে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদেরকে ব্যবহারিক/মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে। ক্রমিক নং-১,২,৬ ও ৭ নং ক্রমিক বর্ণিত পদের জন্য লিখিত এবং ব্যবহারিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষার জন্য যোগ্য বিবেচিত হবে ত্রমিক নং-৩,8,ও ৫ নং এ লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের কম্পিউটার পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করিতে হবে।

প্রতিস্বাক্ষরিত সাময়িক সনদপত্র মৌখিক পরীক্ষার সময় প্রদর্শন করতে হবে। উল্লেখিত সনদপত্র ব্যতীত অন্য কোন সনদপত্র মুক্তিযোদ্ধা সনদ হিসেবে গ্রহণযোগ্য হবে না।

আবেদনকারী মুক্তিযোদ্ধা/ মুক্তিযোদ্ধার পুত্র/কন্যা/নাতি-নাতনী হলে আবেদনকারী যে মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুত্র/কন্যা/নাতি-নাতনী এই মর্মে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান/ সিটি কপোর্রেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও পৌরসভার মেয়র কর্তৃক সনদপত্র/প্রত্যয়ন পত্র দেখাতে হবে।

আগ্রহী প্রার্থীরা আগামী ০১ সেপ্টেম্বর টেলিটক এর ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারবেন। আবেদন করার পূর্বে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি ভাল করে পড়ে বুঝে তারপর আবেদন করুন। আবেদনের শেষ তারিখ ২২/০৯/২০২১ বিকাল ৫.০০ ঘটিকা পর্যন্ত।

শারীরিক প্রতিবন্ধী ও এতিমদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক কর্তৃক প্রদত্ত সনদ দখিল করতে হবে। ক্ষুদ্র গোষ্ঠীদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক ও গোত্র প্রধান কর্তৃক প্রদত্ত সনদ দখিল করতে হবে।

জেলার স্থারী বাসিন্দা প্রমাণের সনদ হিসেবে সিটি/ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান/মেয়র পৌরসভা/সিটি করপোরেশন ওয়ার্ড কাউন্সিলর কর্তৃক প্রদত্ত সনদ দখিল করতে হবে।

আনসার ও ভিডিপি কোটায় আবেদন করলে প্রার্থীকে বাংলাদেশ আনসার একাডেমী থেকে ০৬ সপ্তাহের প্রশিক্ষনের সনদ দখিল করতে হবে। নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা সংক্রান্ত সরকারের সর্বশেষ নীতিমালা অনুসরণ করা হবে এবং নিয়োগ সংক্রান্ত সরকারি সকল বিধি বিধান অনুসরন করা হবে।

যদি কোন প্রার্থী বাংলাদেশের নাগরিক না হন কিংবা বাংলাদেশের নাগরিক নন এমন কোন ব্যক্তিকে বিয়ে করেন বা করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হন তবে তিনি সরাসরি নিয়োগ লাভের জন্য উপযুক্ত বিবেচিত হবেন না।

প্রার্থী কর্তৃক প্রদত্ত কোন তথ্য বা দাখিলকৃত কাগজপত্র জাল, মিথ্যা, ভুয়া বা ভুল প্রমাণিত হলে কিংবা পরীক্ষায় নকল বা অসদুপায় অবলম্বন করলে প্রার্থীর প্রার্থীতা বাতিল করা হবে এবং তার বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Comment